বুয়েটেকের মাধ্যমে আপনার কাজ বা অর্জন সম্পর্কে জানিয়ে দিতে চান আমাদের? একটি প্রোজেক্টকে সঠিকভাবে উপস্থাপনের জন্য বুয়েটেক কিছু নীতিমালার দিকে দৃষ্টি রেখে এগিয়ে চলেছে। আপনি হতে পারেন বুয়েটেকের একজন সক্রিয় সদস্য, খুব সহজেই নিবন্ধনের মাধ্যমে। সামনে চলার পথে আপনিও হতে পারেন একঝাক স্বপ্ন-পিয়াসী মানুষের কর্মঠ সহকর্মী।

প্রাথমিকভাবে একটি সুন্দর আর্টিকেলের জন্য আমরা যেগুলোর উপরে গুরুত্ব দিচ্ছি:

১. একটি সুন্দর টাইটেল! কোন রিপোর্ট বা প্রতিবেদনের ক্ষেত্রে এটা আমাদের পাঠকের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

২. আপনার প্রোজেক্টের পিছনে একটি সুন্দর উদ্দেশ্য। সেটি যে নতুন হতেই হবে তেমন নয় বরং বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে উন্নয়নের মাধ্যমে ভূমিকা রাখতে পারবে এমনটি হলে ভালো হয়।

৩. যদি আপনি দলগত-ভাবে কাজ করেন তাহলে অবশ্যই দল, দলের তত্ত্বাবধায়ক, সদস্য এবং অন্যান্য সহযোগীদের নাম বা ভূমিকা নির্দিষ্টভাবে উল্লেখ করবেন। বুয়েটেক তার নীতিগত অবস্থানের মাধ্যমে কোন প্রোজেক্টে সামান্য অবদানের জন্যও উক্ত ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের যথাসম্ভব মূল্যায়ন নিশ্চিত করতে আগ্রহী।

৪. লেখনীর মাঝে সাবলীল বাচনভঙ্গি রাখবার চেষ্টা করা। এছাড়া আরও বেশকিছু ব্যাপার যুক্ত করা, যেমন: কেন আপনি/আপনারা এ ধরণের কাজে উৎসাহী হলেন, কি কি রিসোর্স ব্যবহার করেছেন, কেমন খরচ হতে পারে ইত্যাদি। এভাবে আপনার মাধ্যমেই আরো অনেক শিক্ষার্থী, ছোটরা বা অনেক অভিজ্ঞরাও উৎসাহিত হবেন, নতুন করে পথ চলার অনুপ্রেরণা পাবেন।

৫. প্রোজেক্ট সম্পর্কিত ছবি বা ভিডিও কিংবা সম্ভব হলে উভয়টি যুক্ত করুন। অসংখ্য লেখার চাইতে একটিমাত্র ছবি অধিকাংশ ক্ষেত্রে অনেক বেশি গুরুত্ব বহন করে।

৬. যদি আপনি কোন অংশ গোপনীয় রাখতে চান তবে চেষ্টা করবেন এ ব্যাপারে যথাসম্ভব বর্ণনা দিতে। উদাহরণ হিসেবে বলা যেতে পারে, আপনি এভাবে লিখতে পারেন, “ফ্রেমটি Alluminium এর মাধ্যমে তৈরি এবং চারটি Servo Motor ব্যবহার করা হয়েছে।” যদি আরও বেশি শেয়ার করতে চান সেক্ষেত্রে লিখতে পারেন, “ফ্রেমটি তৈরিতে Alluminium angle (6061 T6) এবং চারটি Wizbang servo motor ব্যবহার করা হয়েছে যেগুলো 4.1 kg-cm টর্ক সৃষ্টি করতে পারে” ।আর যদি সম্পূর্ণ ব্যাপার আপনি শেয়ার করতে চান তবে ডিজাইন , সার্কিট ডায়াগ্রাম বা পার্টস লিস্ট অথবা এলগরিদম প্রকাশ করলে খুব সুবিধাজনক হয়।

৭. যদি আপনি কখনো সংশ্লিষ্ট প্রোজেক্ট সম্পর্কিত কোন পুরস্কার জিতে থাকেন, সেটি গুরুত্বপূর্ণ হোক বা না হোক, তবে সেটির নাম উল্লেখ করতে অবশ্যই ভুলবেননা।

৮. শেষ এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা! ”আপনার সাথে যোগাযোগের বিস্তারিত তথ্য বুয়েটেক কে দিতে মোটেও ভুলবেননা।” আপনি বিখ্যাত হ’লে আমরা তখনো বন্ধু হয়ে আপনার কাছে নতুনদের বার্তা বয়ে নিয়ে যাবো।

Share Button